[bardhaman] - ক্ষোভে রাশ টানাই চ্যালেঞ্জ

  |   Bardhamannews

ঘটনা ১: পূর্বস্থলীর মেরতলা পঞ্চায়েতে দলের ‘হুইপ’ অগ্রাহ্য করে প্রধান হন প্রাক্তন বিধায়কের এক অনুগামী। সভায় হাজির দলের নেতারা দেখেন, সদ্য নির্বাচিত পঞ্চায়েত সদস্যেরা নির্দেশ অগ্রাহ্য করছে।

ঘটনা ২: দুই নেতার দ্বন্দ্ব যাতে মাথাচাড়া না দেয়, সে জন্য মেমারি ২ ব্লকের সাতগেছিয়া ২ পঞ্চায়েতে প্রধান ও উপপ্রধানের নাম ঠিক করে দিয়েছিলেন দলের নেতৃত্ব। কিন্তু তা অগ্রাহ্য করে বোর্ড গঠনের দিন ভোটাভুটি হয়। সেখানেও ফয়সালা না হওয়ায় ব্লক প্রশাসনকে টস করে প্রধান ও উপপ্রধান ঠিক করতে হয়।

পূর্ব বর্ধমানের ২১৫টি পঞ্চায়েতের মধ্যে মাত্র ২১টিতে এখন বোর্ড গঠনের কাজ চলছে। তার মধ্যেই দু’টিতে দলের নির্দেশ অগ্রাহ্য করার মতো ঘটনা ঘটায় তৃণমূল নেতাদের কপালে চিন্তার ভাঁজ। প্রশাসন সূত্রে জানা গিয়েছে, বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জয়ী প্রার্থীদের বিষয়ে দু’এক দিনের মধ্যে কলকাতা গেজেট প্রকাশের সম্ভাবনা রয়েছে। তা হয়ে গেলেই তিন সপ্তাহের মধ্যে বাকি পঞ্চায়েত ও ২৩টি পঞ্চায়েত সমিতির বোর্ড গঠন করতে হবে। তখন কী ভাবে গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব ও ভোটাভুটি এড়িয়ে প্রধান ও উপপ্রধানের নাম ঘোষণা করা যাবে, তা নিয়ে চিন্তায় তৃণমূলের জেলা নেতৃত্ব। যদিও জেলা নেতাদের অনেকের দাবি, গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব নয়, ভুল বোঝাবুঝির জন্য ওই দু’টি ঘটনা ঘটেছে। পরে এ ধরনের ঘটনা আর ঘটবে না বলে তাঁদের আশা।...

এখানে সম্পূর্ণ সংবাদ পড়ুন— - http://v.duta.us/0sjIJQAA

📲 Get Bardhamannews on Whatsapp 💬