[calcutta] - পুলিশ হতে চান গঙ্গায় ঝাঁপ দিতে যাওয়া যুবক

  |   Calcuttanews

হাসপাতালে ১৫ দিন কাটিয়ে সুস্থ, ধোপদুরস্ত যুবককে দেখে তখন চেনার উপায় নেই। শার্ট-প্যান্ট, হুডওয়ালা জ্যাকেট পরে মায়ের সঙ্গে হাসিমুখে ব্যাঙ্কশাল আদালতে হাজির তিনি।

উত্তর বন্দর থানার পুলিশ আধিকারিককে দেখে বলেন, ‘‘স্যার সে দিন আপনি সিংহ আর ইঁদুরের কথাটা না বললে সত্যিই হয়তো গঙ্গায় ঝাঁপ দিয়ে দিতাম।’’ শুনে পুলিশ আধিকারিক বললেন, ‘‘আর যেন ও সব মাথায় না আসে!’’ পরে ওই পুলিশ আধিকারিক বলেন, ‘‘ছেলেটা যখন হাওড়া সেতুর রেলিং ধরে ঝুলছে, তুলে আনার জন্য ওকে বলেছিলাম, তোমার চেহারা তো সিংহের মতো। কাজকর্ম ইঁদুরের মতো কেন? চার ঘণ্টা ধরে টানা এ সবই বলে গিয়েছি। এই কথাটা কাজে লেগেছিল। ভাল থাকুক। জীবনে ফিরে আসুক।’’

পাভলভ হাসপাতালে চিকিৎসার পরে সুস্থ হেমন্ত গগৈ নামে ওই যুবক অবশেষে বাড়ি ফিরলেন আদালতের নির্দেশে। হাওড়া স্টেশন দিয়ে কিছুতেই যেতে রাজি না হওয়ায় শনিবার হেমন্তকে তাঁর মা মিনু গগৈ গোহাইনের সঙ্গে বিমানে গুয়াহাটি পাঠানো হয়েছে। তার আগে ব্যাঙ্কশাল আদালতে হাজির হয়ে পুলিশ আধিকারিকদের হেমন্ত জানিয়ে গিয়েছেন, তাঁদের কাছে তিনি কৃতজ্ঞ। হেমন্ত এ-ও বলেছেন, ফিরে গিয়ে পুলিশের চাকরির পরীক্ষায় বসতে চান তিনি। উত্তর বন্দর থানার এক আধিকারিকের কথায়, ‘‘ভাল ছাত্র, মেকানিক্যাল ইঞ্জিনিয়ার। আমাদের দেখে ওঁর এখন পুলিশ হওয়ার ইচ্ছে হয়েছে। বলেছেন, আপনারা আমায় বাঁচিয়েছেন। আমিও এমন কাজ করতে চাই।’’...

ফটো - http://v.duta.us/_qZVAwAA

এখানে সম্পূর্ণ সংবাদ পড়ুন— - http://v.duta.us/WYrJBgAA

📲 Get Calcuttanews on Whatsapp 💬