বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও কর্মী ছাড়াই চলে কাজ

  |   Howrah-Hooglynews

ময়নাতদন্তের জন্য দীর্ঘদিন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নেই। গত ৯ মাস ধরে আবার শব-ব্যবচ্ছেদ করার কর্মী অবসর নিয়েছেন। এই পরিস্থিতির মধ্যেই আরামবাগ মহকুমা হাসপাতাল মর্গে প্রতিদিন গড়ে ৩-৪টি মৃতদেহের ময়নাতদন্ত হচ্ছে। অনভিজ্ঞদের দিয়ে ময়নাতদন্তের অভিযোগ তুলে হামেশাই অসন্তোষ প্রকাশ করেন অস্বাভাবিকভাবে মৃত পরিবারের সদস্যরা। অসন্তোষ আছে পুলিশেরও।

মহকুমা হাসপাতাল এবং পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে প্রায় ২০ বছর ধরে ময়নাতদন্তের বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক নেই। ফলে অন্য বিভাগের চিকিৎসকদের দিয়েই ময়নাতদন্ত করাতে হচ্ছে পুলিশকে। এতে অনেক সময়েই রিপোর্টের বিশ্বাসযোগ্যতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন সংশ্লিষ্ট মৃতের পরিবারের লোকরা। তার জেরে ময়নাতদন্তে অনভিজ্ঞ চিকিৎসকরাও জটিল মৃত্যুর ঘটনাগুলির ময়নাতদন্ত করতে অস্বীকার করেন। ফলে দেহ বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল মর্গে স্থানান্তরিত করতে হয়। সব মিলিয়ে হয়রানি এবং আর্থিক বোঝা বহন করতে হয় পুলিশ প্রশাসনকে। যেমন, আরামবাগ মহকুমা হাসপাতালে ময়নাতদন্ত না হলে মৃতদেহ বর্ধমানে নিয়ে যাওয়া এবং সেখানে ময়নাতদন্তের পরে ফের মৃতদেহ বাড়িতে পৌঁছে দেওয়ার দায়িত্ব পুলিশের উপরই বর্তায়।...

ফটো - http://v.duta.us/wSPggQAA

এখানে সম্পূর্ণ সংবাদ পড়ুন- - http://v.duta.us/ZoYJ9AAA

📲 Get Howrah-Hooglynews on Whatsapp 💬