বন্ধ ফোয়ারার জলে লার্ভা, মোহরকুঞ্জ যেন মশার আঁতুড়ঘর

  |   Calcuttanews

মাত্র ৫০ মিটারের মধ্যেই রয়েছে রবীন্দ্র সদন, এসএসকেএম হাসপাতাল। তবু ডেঙ্গির এই মরসুমে মোহরকুঞ্জ যেন আস্ত মশার আঁতুড়ঘর! সাজানো মোহরকুঞ্জে ধুমধাম করে উদ্বোধন করা ফোয়ারা প্রায় আট বছর ধরে অকেজো হয়ে পড়ে রয়েছে। আর সেখানেই জমে রয়েছে জল। সেই জমা জলে জমেছে আবর্জনা, জন্মেছে মশার লার্ভাও।

সম্প্রতি মোহরকুঞ্জে গিয়ে দেখা গেল, বন্ধ ফোয়ারার পাশে বসে গল্পগুজব করছেন কয়েক জন। তাঁদেরই এক জন, পেশায় চিকিৎসক বললেন, ''এই জল কিন্তু মশার লার্ভা জন্মানোর উপযুক্ত পরিবেশ।'' এখানে এসে কোনও দিন পুরসভার ডেঙ্গি অভিযান দলকে কাজ করতে দেখেছেন? ওই ব্যক্তির উত্তর, ''নজরে পড়েনি।''

কলকাতায় ডেঙ্গি আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় তিন হাজার। প্রতিদিনই সেই সংখ্যা বাড়ছে। মশাবাহিত রোগ নিয়ে পুর কর্তৃপক্ষের তরফে সচেতনতা প্রচার চালানো হলেও এ বছর ডেঙ্গি দমন নিয়ে বড়সড় প্রশ্নের মুখে পুরসভা। বর্তমানে নন্দনে চলা ২৫তম কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসব উপলক্ষে দেশি-বিদেশি অতিথি-অভ্যাগতদের ভিড় লেগে রয়েছে ওই এলাকায়। অথচ তারই মাত্র ৫০ মিটারের মধ্যে মোহরকুঞ্জের প্রায় আড়াই হাজার বর্গফুট এলাকা জুড়ে থাকা জলাশয়ে কিলবিল করছে লার্ভা। তবে সেটা আদৌ মশার লার্ভা কি না, তা যাচাই করার দায়িত্ব নিয়েও পুরসভা কতটা সজাগ, উঠছে সেই প্রশ্নও।...

ফটো - http://v.duta.us/Y_8UAwAA

এখানে সম্পূর্ণ সংবাদ পড়ুন- - http://v.duta.us/2o-d6QAA

📲 Get Calcuttanews on Whatsapp 💬