সরকারি স্কুলে টাকা দাবি! অভিযোগ মন্ত্রীর সামনেই

  |   North-Bengalnews

বন্ধ চা বাগানে চূড়ান্তভাবে লঙ্ঘিত হচ্ছে শিশুদের অধিকার। পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেবের সামনেই রাজ্য শিশু সুরক্ষা আয়োগের চেয়ারপার্সন অনন্যা চক্রবর্তী এই অভিযোগ তুললেন। শিলিগুড়িতে রাজ্যের শিশুসুরক্ষা দিবসের সরকারি অনুষ্ঠানে এই অভিযোগ তোলেন তিনি। রবিবার দীনবন্ধু মঞ্চে আয়োগের চেয়ারপার্সন অনন্যা চক্রবর্তী বলেন, ‘‘বাবা-মায়েরা দাবি করেছেন, পেশকের একটি স্কুলে পড়াশোনার জন্য একটি চিরকুটে লিখে প্রতিমাসে ১ হাজার টাকা করে দিতে হচ্ছে। আমরা শিশুর শিক্ষার অধিকার রক্ষার নোডাল এজেন্সি। ওই স্কুলের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেব।’’

বিষয়টি অবিলম্বে খতিয়ে দেখার আশ্বাস দিয়েছেন মন্ত্রী। পাশাপাশি বন্ধ বাগানের ছাত্রছাত্রীদের কাছে পড়াশোনার জন্য পয়সা নিলে সেই স্কুলের প্রধান শিক্ষককে সাসপেন্ড করার সুপারিশ করা হবে বলে ইঙ্গিত দিয়েছেন আয়োগের কর্ত্রী।

উত্তরবঙ্গে এই মুহূর্তে বন্ধ রয়েছে প্রায় ১২টি চা বাগান। সেখানকার শ্রমিক পরিবারগুলোর শিশুদের অবস্থা ভাল নয় বলে জানাচ্ছেন কমিশনের প্রধানরা। উত্তরবঙ্গে গত কয়েক মাসে ৬টি বন্ধ চা বাগান ঘুরে দেখেছেন আয়োগের সদস্যরা। দার্জিলিং জেলায় পানিঘাটা এবং পেশকে চা বাগান বন্ধ রয়েছে। আয়োগের উদ্বেগ, এমনিতেই বাগান বন্ধ হয়ে গেলে চূড়ান্ত দারিদ্র্যের মধ্যে সীমান্তবর্তী এলাকায় নারী ও শিশু পাচারের প্রবণতা বাড়ে। এই পরিস্থিতিতে বাচ্চারা যাতে স্কুলে অন্তত এক বেলা খেতে পারে তা নিশ্চিত করার পরামর্শ দিয়েছেন তারা। এখন যদি পড়াশোনার জন্য সরকারি স্কুলে টাকা নিলে বাধ্য হয়ে অনেকেই পড়াশোনা ছেড়ে দিতে পারে বলে আশঙ্কা আয়োগের সদস্যদের।...

ফটো - http://v.duta.us/j4-n4wAA

এখানে সম্পূর্ণ সংবাদ পড়ুন— - http://v.duta.us/Ge7RJAAA

📲 Get North-Bengalnews on Whatsapp 💬