কাটমানি কাঁটায় স্ত্রী, সন্তান-সহ ঘরছাড়া তৃণমূল নেতা

  |   Midnaporenews

কাটমানির ক্ষোভে পড়ে স্ত্রী, ছেলে নিয়ে ঘরছাড়া শাসকদলের নেতা। করতে পারছেন না জমির চাষ। স্কুলে যেতে পারছে না এক ছেলে।

চন্দ্রকোনা রোডের উড়িয়াসাই অঞ্চলের মহাবনকাটি গ্রামের প্রাক্তন পঞ্চায়েত সদস্য কার্তিক দিগারের ঠিকানা এখন পাশের ব্লকের এক আত্মীয় বাড়ি। একমাস ধরে তিনি গ্রামছাড়া হয়ে স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন গোয়ালতোড়ের ওই আত্মীয় বাড়িতে।

২০১৩-’ ১৮ পর্যন্ত গ্রাম পঞ্চায়েতের তৃণমূলের নির্বাচিত সদস্য ছিলেন কার্তিক। গত বছরের পঞ্চায়েত ভোটে মহাবনকাটি বুথে তৃণমূল জয়ী হয়। এমনকি, এ বারের লোকসভা ভোটেও এই বুথে ‘লিড’ পেয়েছে তৃণমূল। তবু কেনও ঘরছাড়া? বৃহস্পতিবার কার্তিক বলেন, ‘‘গত ৫ অগস্ট রাত্রে মহাবনকাটি গ্রামের আটচালায় গ্রামের কয়েকজন মাতব্বর সালিশি সভায় আমাদের কয়েকজনকে ডাকেন। আমাকে বলা হয়েছিল, আমি নাকি অনেক টাকা কাটমানি খেয়েছি। তাই তিনদিনের মধ্যে আমাকে ১ লক্ষ ৭২ হাজার টাকা ফেরত দিতে হবে।’’ ওইদিনই টাকা ফেরত চেয়ে তাঁকে মারধর করা হয় বলে অভিযোগ কার্তিকের। এরপরই স্ত্রী ও দুই ছেলেকে নিয়ে ঘরছেড়ে পালিয়ে যান ওই তৃণমূল নেতা। তাঁর কথায়, ‘‘ভয়ে পালিয়ে গিয়েছি। আমি কোনও টাকাপয়সা, কাটমানি নিইনি। তবুও আমাকে চাপ দেওয়া হচ্ছিল। প্রাণে মেরে ফেলার হুমকি দেওয়া হচ্ছিল।’’...

ফটো - http://v.duta.us/ycufBgAA

এখানে সম্পূর্ণ সংবাদ পড়ুন— - http://v.duta.us/jhvkngAA

📲 Get Midnaporenews on Whatsapp 💬